1. admin@idealmediabd.com : Sultan Mahmud : Sultan Mahmud
  2. abutalharayhan62@gmail.com : Abu Talha Rayhan : Abu Talha Rayhan
  3. nazimmahmud262@gmail.com : Nazim Mahmud : Nazim Mahmud
  4. tufaelatik@gmail.com : Tufayel Atik : Tufayel Atik
বৃটেনে কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন সিলেটের ইবশা চৌধুরী: প্রশংসায় পঞ্চমুখ উদীয়মান এই নেতা - ইত্তেহাদ টাইমস
রবিবার, ২২ মে ২০২২, ১২:৫৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
“মাওলানা আব্দুল মতিন অর্ধ শতাধিক কাল ধরে জ্ঞানের প্রদীপ প্রজ্জ্বলিত করেছেন” ড. এনায়েত উল্লাহ আব্বাসীর বিরুদ্ধে মামলা সিলিং ফ্যান পড়ে আহত ড. মুরাদ হাসান ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের চক্রান্ত করছে: জমিয়ত গণকমিশন নিজেদের ইসলাম-বিদ্বেষী চেহারা উন্মোচিত করেছে : হেফাজত আমীর করীমিয়া বেসরকারী মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডের ফলাফল প্রকাশ : পাশের হার ৯৫.৬৬% বৃটেনে কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন সিলেটের ইবশা চৌধুরী: প্রশংসায় পঞ্চমুখ উদীয়মান এই নেতা ঈদের স্বরূপ ও উদযাপনের পদ্ধতি : মাওলানা আব্দুল মালেক দেশবাসীকে শায়খ আতাউর রহমানের পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা বিশ্বমুসলিম উম্মাহকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মাওলানা গোলাম আম্বিয়া কয়েছ

বৃটেনে কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন সিলেটের ইবশা চৌধুরী: প্রশংসায় পঞ্চমুখ উদীয়মান এই নেতা

আদিল আহমদ সিলেট থেকে
  • প্রকাশটাইম: মঙ্গলবার, ১০ মে, ২০২২
সিলেটের কৃতিসন্তান ইবশা আহমদ চৌধুরী

বৃটেনের ওরথিং বারা কাউন্সিল এর ক্যসল ওয়ার্ড থেকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন সিলেটের চৌধুরী ইবশা আহমদ ।

উক্ত কাউন্সিলে প্রথমবারের মত কোন বাঙ্গালী কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন। বৃটেনে এক নতুন ইতিহাস বা নতুন অধ্যায়ের সূচনা ঘটেছে ইবশার হাত ধরেই। ইবশা লেবার পার্টির হয়ে কাউন্সিলর পদে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন। তিনি যে ওয়ার্ডে কাউন্সির পদে নির্বাচনে অংশ নেন সেই ওয়ার্ডটি লেবার পার্টির জন্য একটি বৈরি এলাকা। কোনদিন এই ওয়ার্ডে লেবার পার্টিও হয়ে কেউই কাউন্সিলর হিসেবে জয়লাভ করতে পারেন নি। লেবার পার্টিও হয়েও বৃটেনের ওরথিং বারা কাউন্সিল এর ক্যসল ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর পদে গড়েছেন এক নতুন ইতিহাস।

নির্বাচনে বিপুল ভোটে লেবার পার্টির হয়ে ছিনিয়ে এনেছেন বিজয়ের মালা।

 

ইবশা চৌধুরীর পিতা আমোদ চৌধুরী বেশ ক’বার সিলেটের টুকেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে অংশ নিয়ে সফল হতে পারেন নি। তাঁর স্বপ্ন ছিলো জনপ্রতিনিধি হওয়ার কিন্তু সেই সপ্ন নিজের কাছে বাস্তবায়িত না হলেও আজ ধরা দিয়েছে সাফল্য।

বিদেশের মাটিতে তাঁরই সুযোগ্য সন্তান জনপ্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন লড়াই করে। এর চেয়ে বড় সপ্ন পূরণ আর কি হতে পারে? তাও আবার অনেক ইতিহাস রচনা করেছেন বৃটেনের মাটিতে। আজ ইবশার বাবা গোলাম রব্বানি চৌধুরী আমোদ বেঁচে থাকলে নিশ্চয়ই তৃপ্তির আতিশয্যে নিজের সপ্ন ছেলে যে বাস্তবায়ন করেছেন তাতে হয়তো খুশিতে আত্মহারা হয়ে তার উজ্জল চেহারাটি গোলাপি বর্ণ ধারণ করতো।

 

ছোটবেলা থেকে স্কুলের ফাস্টবয় ইবশার চোখে উজ্জল ভবিষ্যতের ইমেজ দেখতেন বলে উল্লেখ করেছেন সিলেট প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, একাত্তর টেলিভিশন এর সিলেট বুরো চিফ ইকবাল মাহমুদ।

তিনি আরো বলেন, ছোটবলা থেকে পড়াশুনা, খেলাধুলা সবখানেই ইবশার সাফল্য ছিলো ঈর্শণীয়। ছোটবেলাকার সেই চটপটে, দূরন্ত, মেধাবী ইবশা আজ বিলেতে ইতিহাসের এক নতুন অধ্যায়ের নির্মাতা। তিনি ইবশার আগামীর জন্য শুভকামনা ও নতুন এক ইতিহাস রচনার জন্য শুভকামনা জানান।

 

ইবশা চৌধুরীর পিতৃনিবাস টুকেরবাজার ইউনিয়নের খুররমখলা গ্রামে।

 

ইবশা চৌধুরীর এমন বীরত্ব ও সাফল্যমন্ডীত বিজয়ে উচ্ছসিত এলাকাবাসী, আত্মীয়-স্বজন ও শুভাকাঙ্খীরা।

ইবশা চৌধুরী সম্পর্কে এলাকাবাসীর সাথে কথা বললে জানা যায়, সকলেই তাঁর প্রশংসায় পঞ্চমুখ। এলাকার গৌরব তথা সিলেটের অহংকার বলে আবেগী কন্ঠে শুভকামনা জানান এক বৃদ্ধবয়সী প্রিয়জন।

বাবার জনপ্রতিনিধি হওয়ার সপ্নটা হয়তো ছেলে বুকে লালন করেছিলেন দীর্ঘদিন ধরে। তিনি বৃটেনের ওরথিং বারা কাউন্সিল এর ক্যসল ওয়ার্ডে কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করে বিপুল ভোটের ব্যবধানে লেবার পার্টির হয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন।

 

তিনি লিভারাল ডেমুক্রেটস এর দলীয় প্রার্থী রজার্স রবিন থার্সটন (২৮১ ভোট) ও দ্যা কনজারভেটিভ পার্টি এর দলীয় প্রার্থী শাশাতি হাবিব (৬৫৮ ভোট)  এবং গ্রিন পার্টি এর স্মিথ ক্রিসটপার (১৮৮ ভোট)  এর চিরপ্রতিদ্বন্ধী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেন। ১২৯৭ ভোট পেয়ে নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী শাশাতি হাবিব এর চেয়ে ৬৪১ ভোট বেশি পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন।

তিনি বৃটেনের ক্যসল ওয়ার্ডেও নাগরিকদের খুব ভালোবাসতেন যার ফলশ্রুতিতে তাঁর প্রতি ভোটের মাধ্যমে ভালোবাসা ও ভরসা দেখিয়েছে জনসাধারণ।

ননবনির্বাচিত কাউন্সিলর ইবশা চৌধুরীদাদা ছিলেন হবিগঞ্জ ১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ইসমত আহমেদ চৌধুরী। ইবশা চৌধুরী রাজনৈতিক পরিবার থেকে বেড়ে উঠেছেন।

 

মুঠোফোনে ইবশা চৌধুরীর সাথে কথা হলে তিনি জানান, সকলের দোয়া ও ভালোবাসাই ছিলো আমার সবচেয়ে বড় হাতিয়ার। আমি একজন বাঙ্গালী হিসেবে প্রথম কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছি। যা আমার জন্য অনেক কিছু। লেবার পার্টির হয়েও ক্যসল ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রথম কোন প্রার্থী হিসেবে আমার জয়।

 

 

 

 

 

Ad/08/IT

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
ইত্তেহাদুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন-এর একটি প্রতিষ্ঠান copyright 2020: ittehadtimes24.com  
Theme Customized BY MD Maruf Zakir