1. admin@idealmediabd.com : Sultan Mahmud : Sultan Mahmud
বেফাকের ফাঁক নিয়ে কিছু কথা - ইত্তেহাদ টাইমস
শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ১২:৪১ অপরাহ্ন
শিরোনাম:

বেফাকের ফাঁক নিয়ে কিছু কথা

রাশেদ বিন শফিক
  • প্রকাশটাইম: বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০

রাশেদ বিন শফিক

বেফাক (বেফাকুল মাদারিস আরাবিয়া বাংলাদেশ) শব্দটির সাথে জড়িত কওমিয়ানদের আবেগ, অনুভূতি, শ্রদ্ধা, ভালোবাসা। বাংলাদেশে কওমি মাদ্রাসার প্রায় জন্মলগ্ন থেকেই বেফাকের পথচলা। আজকের বেফাক আমাদের আকাবিরদের ঘামঝরা শ্রমের ফসল,শেষ রাতের মুনাজাতের তুহফা।

বেফাক শব্দটির প্রতি আমাদের এতোটাই ভালোবাসা ছিল যে তার মধ্যে আমরা আমাদের আকাবিরদের ছোঁয়া বিদ্যমান বলে বিশ্বাস করতাম।
সুস্বপ্ন পূরণের অন্যতম প্রধান একটা মাধ্যম জানতাম তাকে। কিন্তু এই বেফাকের প্রতি ভালোবাসা ও শ্রদ্ধার এখন যথেষ্ট পরিমান ফাঁক সৃষ্টি হতে বাধ্য হয়েছে। আমরা হতাশ ও প্রচণ্ড শোকাহত!
আমাদের প্রাণপ্রিয় একটা বোর্ডের সর্বোচ্চ পরিচালক থেকে বিভিন্ন বিভাগে দায়িত্বশীলদের এমন কর্মকাণ্ডে। মানুষ ভুলের ঊর্ধে নয় ঠিক কিন্তু জাতীর দিক নির্দেশকরা যখন দুর্নীতির আশ্রয়ও ক্ষমতার অপব্যবহার করেন সেটা জাতীর জন্যে চরম লজ্জা ও ব্যথার।আজ আমরা খুবই মর্মাহত! একটা কথা অবশ্য লক্ষণীয় যে যারা দুর্নীতিতে জড়িত শুধু তারাই নয় বরং এতো এতো অনিয়ম ও দুর্নীতিতে নিরব ভূমিকার জন্যে বেফাকের বর্তমান দায়িত্বশীলের কেউই দায় এড়াতে পারেন না।

গত মঙ্গলবার বেফাক দুর্নীতির প্রধান অভিযুক্ত নিজ সভাপতিত্বে বৈঠক করে তিনজনকে বরখাস্ত করে যে ছেলেখেলা দেখালেন তা হাস্যসম্পদ বৈ কিছু নয়। এরকম ছেলেখেলা চলতে থাকলে মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড নিয়ে জনমহলে বিরাট উদ্বেগ সৃষ্টি হয়ে পড়াটা খুব স্বাভাবিক। তাই এখন বেফাকের বর্তমান সকল দায়িত্বশীলদের অব্যাহতি দিয়ে নতুন করে সাজানোটা বুদ্ধিমত্তার পরিচয় হবে।এবং জনরোষ থেকে বেফাককে কিছুটা না হয় উদ্ধার করা যাবে।
বেফাককে নতুন করে সাজাতে একটা কথা মনে রাখতে হবে বর্তমান বেফাকে দুর্নীতির মতো বিষাক্ত অসুখ সৃষ্টি হয়েছে বেফাকের বিলাসিতার কারণেই।
তাই বেফাককে নতুন করে সাজাতে দায়িত্বশীলদের এই মোটা অংকের বেতনটাকে যথেষ্ট পরিমাণের ছোট করে আনতে হবে।
বর্তমান বেফাক একটা কথা ভুলে গিয়েছিল যে,বেফাকে যা অর্থ আসে তা প্রতিটা ছাত্র/ছাত্রীর বাবার শরীরের রক্তঝরা পরিশ্রমের। এটা এখন আবার ভুলে গেলে বেফাকের ফাঁক ভরাট হবে না। আর আমাদের আকাবিররা বেফাক যখন চালিয়েছেন তখন অনেকেই নিজেদের পরিবারের খরচপাতির অর্থটা বেফাকে ঢেলেছেন সেটাও মনে রাখতে হবে।
বেফাকের কোনো কর্মকর্তাকে নির্দিষ্ট করে বোর্ডের পক্ষ থেকে যাতায়াতের জন্যে যানবাহনের ব্যবস্থাকেও সংস্কার করতে হবে।বিলাসিতা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে বেফাককে। আধুনিকতা এবং বিলাসিতা এক নয় কিন্তু। আর আধুনিকতার কলিমা পাঠে বিলাসি মধুপানের ফলটা কেমন হয় দেখতে পারছেন তো!
সর্বোপরি আমাদের মুরুব্বীরা খুব শীঘ্রই একটা সুষ্ঠু কাঠামো নিয়ে আসবেন সেই প্রত্যাশা রইলো।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
copyright 2020: ittehadtimes24.com
Theme Customized BY MD Maruf Zakir